Iceland · Personal · Travel

ইউরোপ টুর – পর্ব ১

স্সম্প্রতি আমি আর আমার hubby মিলে ছোটো খাট একটা ইউরোপ টুর দিলাম।  ইউরোপ বলতে অনেকগুলো দেশ বোঝায়, আমরা অবশ্য মাত্র ৪ টার মতো দেশ

ঘুরেছি (আইসল্যান্ড, ইউ.কে, সুইজারল্যান্ড এবং ইতালী)। তবু বলতে ভাল লাগে ইউরোপ টুর দিয়েছি :) মাত্র ১০ দিনে আমরা এই ৪ টা দেশ ঘুরেছি, এত অল্প সময়ে এত কিছু দেখতে পারব আর এত চমৎকার সময় কাটবে আগে ভাবিনি।

সেপ্টেম্বর  ২৪ এ Londonএর উদ্দেশে শুরু হলো আমাদের বহুপ্রতিক্ষিত সেই টুর । আমাদের flight যথাসময়ে  রওনা দিল Seattle (WA)  থেকে। আমি প্লেনে উঠে খুশিতে  আত্তহারা হলাম যখন দেখলাম আমার সামনের TV Panel’এ ২০০ টির মতো অতি প্রিয় movie আছে। আমার যাত্রা শুরু হলো ‘Taking of Pelham 1 2 3’  movie’টি  দিয়ে  :)

এক নাগাড়ে তিনটা ছবি দেখে যখন চতুর্থটা শুরু করতে যাব তখন আমাদের প্লেন ৯ ঘন্টার transit এর জন্য Iceland পৌছাল। Iceland দেশটি বাংলাদেশের সমান হবে, কিন্তু জনসংখা খুবি কম, যদিওবা দেশটির অর্থনৈতিক অবস্থা খুবি খারাপ, তবু দেখে বেশ সাজান  গোছানো মনে হলো।  বাহিরে যে ভীষন ঠান্ডা ছিল আমরা তার জন্য প্রস্তুত ছিলাম না, বাসে করে দেশটির রাজধানি ‘Reykjavík’ গেলাম শহরটা ঘুরে দেখবার জন্য, ঠান্ডার কারনে খুব একটা ঘুরতে পারছিলাম না, কিন্তু মজার বিশয় হলো এদের main শহর যেখানে সব মার্কেট আছে সেটা খুবি ছোট। অল্প সময়েই তাই ঘুরে ফেললাম ঠান্ডায় কেপে কেপে :P

এরপর গেলাম দেশটির সবচেয়ে জনপ্রিয় ‘Blue Lagoon‘ – একটি geothermal spa’এর জায়গা। মুগ্ধ হয়ে গেলাম দেখে, চমৎকার জায়গা! সময় সল্পতার কারনে পানিতে নামা হয়নি কিন্তু সেই মনমুগ্ধকর জায়গা দেখে ‘Iceland’এর transit টাকে ভীষন সার্থক মনে হলো :) ওখানকার পানি খুবি warm এবং বলা হয়ে থাকে এই জায়গার পানি শরিরের (medical reason) জন্য খুবি ভাল, তাই অনেকেই এই পানিতে গোসল করতে আসে।

Blue Lagoon‘  এর মুগ্ধতা শেষে airport’এর উদ্দেশে রওনা দিলাম, কিছুখনের মাঝে আমাদের যাত্রা শুরু হবে UK (London)’ এর উদ্দেশে। বেশ ভালই লাগল দেশটি দেখে। সবচেয়ে মজা পেয়েছিলাম যেই জিনিষে তা হলো দেশটির currency! ১ ডলার = ১২৪ ক্রনা। এক কাপ চায়ের দাম দেখা যায় ২৫০ ক্রনা, বাসের ভাড়া দেখা যায় ৫/৬ হাজার :P কয়েক ঘন্টায় মনে হলো আমরা বুঝি অনেক হাজার কিংবা লাখ ক্রনা খরচ করে ফেলেছি :D

যাহোক, ‘Blue Lagoon’  থেকে সরাসরি এয়ারপোর্টে ফিরলাম, অনেক খুজে পেতে কিছু asian খাবার জোগার করলাম, সেই অখাদ্য গিলে কিছুখন হাটাহাটি করতেই প্লেন উঠার সময় এলো। যাত্রা শুরু করলাম UK এর উদ্দেশে – যে দেশ একসময় পৃথিবিকে শাষন করেছে, যে দেশ নিয়ে আছে অনেক ইতিহাস, সেই দেশ আমি অবশেষে দেখব, ভেবেই আমার কেমন যেন অদ্ভুত এক অনুভুতি হলো!!

Blue Lagoon Spa - Iceland

Reykjavík - capital of Iceland
Reykjavík - capital of Iceland
Advertisements

2 thoughts on “ইউরোপ টুর – পর্ব ১

  1. অনেক সুন্দর করে লিখেছেন। যাকে বলে এক নি:শ্বাসে পড়ার মত।
    খুব ভালো লেগেছে আপনার অভিব্যক্তি। কোন কৃত্রিমতা নেই। মনের কথা প্রকাশে কোন দৃধা দেখলাম না। যা অন্যান্য ব্লগারদের থাকে।

    অনেক ভালো থাকবেন।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s